আউটসোর্সিং ফ্রিল্যান্সিং অনলাইনে আয় ঘরে বসে টাকা আয় করুন

ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং করে ঘরে বসে ইনকাম করা খুব সহজ একটি কাজ

অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম অনেক ভাবে করা যায় আমাদের দেশের শত শত বেকার মানুষ রয়েছে যারা কোন অফিসে কোন কোম্পানিতে ভালোভাবে চাকরি পাচ্ছে না তারা চাইলে অনলাইনে কাজ করতে পারেন এবং অনলাইন থেকে ভালো পরিমাণে ইনকাম করে নিতে পারেন
আউটসোর্সিং ফ্রিল্যান্সিং অনলাইনে আয় ঘরে বসে টাকা আয় করুন

অনলাইনে আপনি কিভাবে কাজ করবেন এবং কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে পারবেন এই বিষয়গুলো নিয়ে আমি আজকে আপনাদের সাথে কথা বলব আশা করি উপকৃত হবেন

আমাদেরকে প্রথমে জানতে হবে ফ্রিল্যান্সিং কি

ফ্রিল্যান্সিং হচ্ছে স্বাধীন একটি পেশা আপনার নিজের ইচ্ছামত আপনি কাজ করতে পারবেন আপনার যে কাজ করতে ভালো লাগে আপনি যত টাকার বিনিময় করতে ভালো লাগে আপনি সেই কাজটি করতে পারবেন আপনার ইচ্ছা মত যার সাথে ইচ্ছা তার সাথে কাজ করতে পারবেন তাও আবার আপনার ঘরে বসে কাজ করতে পারবেন এবং এই কাজ করার জন্য কোন ধরনের ধরাবাধা সময় নাই এবং কোন নিয়ম নেই আপনার ইচ্ছা মত আপনি কাজ করতে পারবেন এটাই হচ্ছে ফ্রিল্যান্স এর কাজ

ফ্রিল্যান্সিং পেশাটি কাদের জন্য

আমাদের দেশে অনেক লোক আছে অনেক কাজ জানেন কিন্তু তারপরেও বেকার শুধুমাত্র চাকরির পিছনে দৌড়ে অনেক সময় নষ্ট করে দিয়েছেন অথচ আপনি জানেন না ফ্রিল্যান্সিং করে আপনি আপনার ক্যারিয়ারকে পরিবর্তন করে নিতে পারেন

এই পেশায় যদি আপনি আসতে চান তাহলে এখনি চলে আসতে পারেন এই পেশায় কাজ করার জন্য বাধ্যকতা কোন ধরনের নিয়ম নেই আপনি যে কোন পেশায় কাজ করেন না কেন ফ্রিল্যান্সিং-আউটসোর্সিং করতে পারেন আপনি যদি ছাত্র হন তাহলেও এই পেশায় চলে আসতে পারেন আমি যদি চাকরি করে থাকেন তারপরেও আপনি চাইলে ফ্রিল্যান্সিং করে ইন্টারনেট থেকে ইনকাম করতে পারেন

ফ্রিল্যান্সিং এর কোন ধরনের কাজ পাওয়া যায়

ফ্রিল্যান্সিং এর সব ধরনের কাজ পাওয়া যায় আপনি যে কাজটি পারেন সেই কাজটি করতে পারেন আপনার ইচ্ছা মত ফ্রিল্যান্সিং এর জনপ্রিয় গানগুলো হচ্ছে গ্রাফিক্স ডিজাইন আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন করতে ভালোবাসেন তাহলে গ্রাফিক্স ডিজাইন করতে পারেন গ্রাফিক্স ডিজাইন এর উপর আমাদের একটি সম্পূর্ণ ফ্রি কোর্স আছে আপনি চাইলে এই পোস্টটি দেখতে পারেন এখানে ক্লিক করে

আপনি যদি সফটওয়্যার এর কাজ করতে ভালবাসেন অথবা সফটওয়্যার তৈরি করতে পারেন তাহলে একজন সফটওয়্যার ডেভেলপার হিসেবে আপনি ফ্রিল্যান্সিং করতে পারেন এবং আপনি চাইলে এস ইউ করতে পারেন অথবা ওয়েবসাইট ডেভলপমেন্ট করতে পারেন অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজের কোন শেষ নেই আপনি যেই কাজ সেই কাজ করে অনলাইন থেকে উপার্জন করতে পারেন

অনলাইন সেক্টরে যে কাজগুলো পাওয়া যায় তার কিছু তালিকা দেওয়া হল সিপিএ মার্কেটিং ভিডিও মার্কেটিং গ্রাফিক্স ডিজাইন ওয়েব ডিজাইন ওয়েব ডেভলপমেন্ট ইউটিউব এডসেন্স

এই কাজগুলোর চাহিদা অনেক এই কাজগুলোর যেকোনো একটি কাজ যদি আপনি শিখতে পারেন তাহলে আপনি অনলাইন থেকে আয় করতে পারবেন

কোথায় থেকে কাজ শিখবেন

ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং শেখার জন্য অনেকগুলো মাধ্যম রয়েছে আপনি চাইলে ঘরে বসেই ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং শিখতে পারেন একসময় ইন্টারনেটের স্পিড খুবই কম ছিল এবং আমরা একসময় ইউটিউব ব্যবহার করতে পারতাম না বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটের স্পিড খুবই ভালো এবং বাংলাদেশের সব জায়গায় ইন্টারনেট সংযোগ আছে

তাই আপনি যদি চান ঘরে বসেই ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং শিখতে পারেন আপনি যদি পারেন ইংরেজি বোঝেন তাহলে ইউটিউবে বিভিন্ন ধরনের ইংরেজি কোর্স পাবলিশ করা আছে আপনি সেই কোষ গুলো দেখতে পারেন এবং সেখান থেকে শিক্ষা করেন

আমাদের দেশে অনেকেই ইংরেজি বুঝেন না তারা বাংলায় ইউটিউবে সার্চ করলে আপনি প্রচুর পরিমাণে টিউটিরিয়াল পেয়ে যাবেন আপনি চাইলে এই টিউটোরিয়াল গুলো দেখে ও শিখতে পারবেন হয়তো আপনি হাতে কলমে শিখতে পারবেন না কিন্তু ইউটিউব এবং গুগোল এ সার্চ করলে আপনি কোন প্রতিষ্ঠানে গিয়ে যা শিখতে পারবেন তার চেয়ে বেশি শিখতে পারবেন ইউটিউব এবং গুগোল থেকে

এবং আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি ভিজিট করতে পারে সেখান থেকেও আপনি অনেক কিছু শিখতে পারবেন

কাজ করবেন কোথায়

কাজ শেখার পরে আপনি বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস পেয়ে যাবেন কাজ করার জন্য কাজ করার জন্য আপনাকে কোন অফিসে যেতে হবে না এবং কোন জায়গায় দৌড়োদৌড়ি ও করতে হবে না আপনি ঘরে বসে কাজ করতে পারবেন

ইন্টারনেটে কাজ করার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হচ্ছে upwork.com আপনি কি ওয়েব সাইটে ভিজিট করে দেখতে পারেন এখানে প্রচুর পরিমাণে কাজ পাওয়া যায় তাছাড়া আরেকটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হচ্ছে freelancer.com এই ওয়েবসাইটে প্রচুর পরিমাণে কাজ পাওয়া যায় আপনি চাইলে এই ওয়েবসাইট গুলো ভিজিট করে দেখতে পারেন

আপনি যদি ভাল একটি দক্ষতা অর্জন করতে পারেন তাহলে এসব সাইটে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে ফেলবেন এবং অ্যাকাউন্ট তৈরি করে সুন্দর করে আপনার প্রোফাইলটা সাজিয়ে নিবেন প্রোফাইলটা সাজিয়ে নেওয়ার পরে আপনি বিভিন্ন বায়ারদের সাথে কথা বলতে শুরু করবেন একসময় দেখবেন তাদের সাথে কথা বলতে বলতে আপনি কাজ গুলো পেয়ে যাবেন

আপনি যদি কাজ করেন তাহলে অবশ্যই আপনার ক্লায়েন্টের ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করে দিবেন এবং সুন্দরভাবে কাজ করে জীবন যেন আপনার ক্লায়েন্ট আপনাকে একটি ভালো ফিডব্যাক দেয় এবং পরবর্তী কাজ পেতে যেন সহায়তা করে এবং পরবর্তীতে আবার আপনাকে কাজ দিতে জন্য আগ্রহী হয় এমন ভাবে কাজটি করে দিবেন

টাকা কিভাবে হাতে নিবেন

ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা হাতে নেওয়ার অনেক মাধ্যম আছে সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে পেপাল যেহেতু পেপার বাংলাদেশ এভেলেবেল না এটা আপনি চাইলে পায়নিয়ার এর মাধ্যমে সমস্ত ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা তুলতে পারেন

তাছাড়া ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোর সরাসরি ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে টাকা ট্রান্সফার করতে আপনি কাজ করতে পারলে টাকা অবশ্যই তুলতে পারবেন বিভিন্ন ধরনের ব্যাংক একাউন্ট আপনার একাউন্টের সাথে লিংক করিয়ে টাকাগুলো নিয়ে আসতে পারবেন

ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে কত টাকা আয় করতে পারবেন

ফ্রিল্যান্সিং করে আপনার প্রতি মাসে আনলিমিটেড টাকা আয় করতে পারবেন ফ্রিল্যান্সিং এমন একটি কাজ আপনি যদি কাজ করতে পারেন তাহলে আপনি প্রচুর টাকা ইনকাম করতে পারবেন আপনি যদি প্রতিদিন চার থেকে পাঁচ ঘন্টা করে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনি মাসে 50000 টাকা থেকে 1 লক্ষ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন

আর কাজের এমাউন্ট হবে আপনার নিজের কাছে আপনি কত টাকা দিয়ে কাজ করবে সেটি ফিক্সট করে নিবেন আপনার ক্লায়েন্টের সাথে আপনার যত বড় ধরনের কাজ করতে পারবেন তত বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন এবং যত বেশি কাজ করতে পারবেন তত বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন ফ্রিল্যান্সিংয়ের টাকার কোন লিমিটেশন নাই আপনি যত বেশি কাজ করবেন তত বেশি ইনকাম করবেন

যে বিষয়গুলো আমাদেরকে মনে রাখতে হবে

আমাদের মাঝে অনেকেই আছে যারা ফ্রিল্যান্সিং না শিখে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট করে ফেলে এবং বিভিন্ন ক্লায়েন্টের সাথে কথাবার্তা বলে  কাজ নেই এবং শেষ পর্যন্ত দেখা যায় তারা কাজ করে দিতে পারে না

এই কাজগুলো কখনোই করা যাবে না আমাদেরকে অবশ্যই ভালোভাবে কাজ সেরে নিতে হবে যে কোন একটি কাজ আপনি চালিয়ে শিখে নিতে পারেন সেই কাজটি যখন আপনি ভালভাবে শিখতে পারবেন আপনি নিজে যখন মনে করবেন আপনি সম্পূর্ণ ভাবে কাজ সিকতে পেরেছেন তখন ওই ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে নেমে পড়বেন কাজ করার জন্য

Post a Comment

0 Comments