অ্যামাজন থেকে ঘরে বসে আয়। Income from Amazon earns from the house

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং অনলাইন থেকে আয় করার একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে অ্যামাজন ওয়েব সাইটে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করা।

অ্যামাজন হচ্ছে পুরো বিশ্বের এক নাম্বার এই কমার্স ওয়েবসাইটে ওয়েবসাইটে ভোটের দিন হাজার হাজার ডলার এর প্রোডাক্ট সেল হচ্ছে এবং এই ওয়েবসাইটে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে বিভিন্ন মার্কেটের প্রতি মাসে হাজার ডলার থেকে 10 হাজার ডলার পর্যন্ত ইনকাম করে নিয়েছে।

অ্যামাজন মূলত পুরো বিশ্বের মানুষকে এফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য একটি এফিলিয়েট প্লাটফর্ম রেখেছে যেখানে আপনার রেজিস্ট্রেশন করে অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট পার্টনারে যোগ দিতে পারেন এবং তাদের পণ্য গুলো সেল করে দেওয়ার মাধ্যমে একটি কমিশন নিয়ে নিতে পারেন।

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য আপনার যা যা প্রয়োজন হবে তা হচ্ছে।

একটি ওয়েবসাইট অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য আপনার একটি ওয়েব সাইট অবশ্যই থাকতে হবে যার মাধ্যমে আপনি অ্যামাজন এর প্রোডাক্ট গুলি বিভিন্ন মানুষের কাছে প্রমোট করবেন।

তবে সবচেয়ে ভালো হয় যদি একটি নিউজ ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন নিজ ওয়েবসাইট হল যে কোন একটি বিষয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার যেমন আপনি ওষুধ বিক্রি করবেন তাহলে আপনার সমস্ত ওয়েবসাইটে ঔষধ রিলেটেড পোস্ট থাকবে এবং সেই ঔষধ এর লিংক গুলো থাকবে যেগুলো আপনি অ্যামাজন থেকে এফিলিয়েট লিঙ্ক নিয়েছেন।

সবচেয়ে ভালো হচ্ছে নিস ওয়েবসাইট নিউজ ওয়েব সাইটে প্রচুর পরিমাণে ভিজিটর প্রবেশ করানো যায় এবং নিউজ ওয়েবসাইট দিয়ে বেশি পরিমাণে ইনকাম করা যায় অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে।

আপনি চাইলে নিউজ ওয়েবসাইটস আরো অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন এক বা একাধিক পণ্য নিয়ে আপনি অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন আপনার নিজের ওয়েবসাইটে।

এফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য আপনার যেমন একটি ওয়েবসাইট থাকা প্রয়োজন তেমনি আপনার ওয়েবসাইটকে গুগলের সার্চ ব্যাংকে পৌঁছানোটাও প্রয়োজনীয় একটি কাজ অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটটিকে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করতে হবে তাহলে আপনার ওয়েব সাইটে সার্চ ইঞ্জিনগুলো থেকে প্রচুর পরিমাণে ভিজিটর পাবেন এবং প্রচুর পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি ডোমেইন এবং একটি হোস্টিং নিয়ে নিতে হবে আপনার ওয়েবসাইটের সেটআপ করার জন্য।

আর তার জন্য আপনার কিছু পরিমাণে খরচ হবে আপনি শুরুতে শেয়ার হোস্টিং দিয়ে শুরু করতে পারেন যখন আপনার ওয়েবসাইটে প্রচুর জনপ্রিয় হয়ে যাবে প্রচুর পরিমাণে বিচিত্র প্রবেশ করবে তখন আপনি সার্ভারটি আপডেট করে নিতে পারবেন।

আপনাকে অবশ্যই কেউ আর কিওয়ার্ড রিসার্চ সম্পর্কে জানতে হবে আপনি যে প্রোডাক্ট বা পণ্য গুলো নিয়ে কাজ করছে সেগুলোর সার্চ রেজাল্ট কেমন তার জন্য অবশ্যই আপনাকে কি ওয়ার্ড রিসার্চ করে আপনার ওয়েবসাইটটি তৈরি করতে হবে তাহলে আপনি খুব দ্রুত সফলতা অর্জন করতে পারবেন।

আপনার ওয়েবসাইটে সেটআপ করা শেষ হয়ে গেলে আপনাকে ভালো মানের কনটেন্ট পাবলিশ করতে হবে কন্টাক্ট হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটের পোস্ট ছবি অথবা ভিডিও আপলোড করতে পারেন এই সমস্ত বিষয়গুলো হচ্ছে আপনার ওয়েব সাইটের কনটেন্ট আপনার যত পারেন আপনার ওয়েবসাইটে কোয়ালিটি ফুল কনটেন্ট দেওয়ার চেষ্টা করবেন তাহলে আপনার ওয়েব সাইটে প্রচুর পরিমাণে বৃষ্টি আসবে এবং আপনার কনভার্শন রেট বেড়ে যাবে।

বিশ্বের প্রচুর মানুষ আমাজন থেকে কেনাকাটা করছেন আপনি যদি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে চান অ্যামাজন এর সাথে তাহলে উপরের এই বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে এবং ভালোভাবে কাজ করতে হবে তাহলে আপনি অবশ্যই যারা এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম করছে তাদের মত ইনকাম জেনারেট করে নিতে পারবেন।

আশা করি পোস্টটি ভালো লাগবে পোস্টটি ভাল লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে পোস্টটি শেয়ার করবেন এবং কোন প্রশ্ন থাকলে আমাদেরকে কমেন্টস করতে পারেন আমরা আপনাদের সাহায্য করার চেষ্টা করব ধন্যবাদ

Post a Comment

0 Comments