কর্ণফুলী নদীর তীরে এক বস্তিতে আগুন প্রাণ গেল ৮ জনের

কর্ণফুলী নদীর তীরে 20 বছর আগে একটি চলে আসে এবং সেখানে কিছু দরিদ্র লোক ঘরবাড়ি তুলে একটি বস্তিতে পরিণত করে এবং সে বস্তিতে গত শনিবার আগুন লেগে মারা যায় ৮ জন,
কর্ণফুলী নদীর তীরে আগুন

এই বস্তিতে জনবসতি প্রায় 20 বছর যাবত ধরে বাস করছে সম্প্রতি এক দখলদারের জমি দখল করতে চেয়েছিল এবং যারা এখানে থাকতো তাদের অনেককেই এখান থেকে চলে যাওয়ার জন্য বলে ছিল এবং অনেকে চলে গেছে আবার কিছু লোক এখন পর্যন্ত যায়নি তারাও যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে গিয়েছিল।

এই মুহূর্তে গত শনিবার রাতে বস্তিতে হঠাৎ করে আগুন লেগে যায় এবং অনেকেই অসুস্থ হয়েছেন এবং মারা গেছেন 8 জন তার মধ্যে এক পরিবারের চারজন এবং শিশু মারা গেছেন চারজন

এখানে যে মানুষগুলো থাকতেন তারা সবাই নিম্নমানের মানুষ কেউ ব্যবসা করতেন কেউ মাছ ধরে নিজের জীবিকা অর্জন করতেন।

এক দোকানদার এই জায়গাটি দখল করার জন্য এই পোস্টটি থেকে মানুষগুলোকে চলে যাওয়ার জন্য বলে জানিয়েছেন বস্তির লোকেরা এবং বস্তির লোকেরা সন্দেহ করছেন সেই দখলদারি বস্তিতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে।

তবে আগুন কিভাবে লেগেছে এখনো ফায়ার সার্ভিস সেটি ধরতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস বলেছে এটি আলোচনা সাক্ষাৎ জানা যাবে যে কিসের মাধ্যমে আগুন লেগেছে তবে বাসিন্দাদের মধ্যে রাজধানীর খালের পাশ থেকে আগুন ধরিয়েছে এখানে তারা সন্দেহ করছে দখলদাররা আগুন লাগিয়েছে বলে।

এই লোক গুলো তাদের বাড়িতে চুরি ডাকাতির ভয়ে তারা সবসময় রাতের বেলায় ঘরের ভিতর থেকে তালা লাগিয়ে ঘুমাতো যার কারণে আগুন লেগে যাওয়ার পরেও অনেকেই ঘর থেকে বের হতে পারেনি যার কারণে অনেকে আহত হয়েছেন।

এবং অনেকে তালা খুলতে পারেন নি এবং আগুন লাগায় তাড়াহুড়ো করে চা দিও খুঁজে পাইনি যার কারণে অনেকে ঘরের দরজা ভেঙ্গে বাহিরে বের হতে হয়েছে এবং বের হতে হতে তারা আহত হয়ে গেছে

এখানের বাসিন্দারা বলেন 20 বছর যাবত এখানে বাস করছি কখনো এখানে আগুন লাগেনি জমির দখলদার এরা যখন বলেছে জমি ছেড়ে দেওয়ার জন্য তারপর এই এখানে আগুন লেগেছে তাই বসবাসকারীরা বলছেন দখলদাররা এ আগুন লাগিয়েছে।

Post a Comment

0 Comments