মোবাইল এর জন্য সেরা ১০ টি ভিডিও এডিটিং অ্যাপস ফ্রি

 আমরা প্রায় সবাই স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি।
 আর এই স্মার্টফোন দিয়ে আমরা অনেক কিছুই করে থাকি।
আমি আজকে আপনাদের ভডিও এডিট করার চমৎকার কিছু সফটওয়্যার দেখাবো যা ব্যবহার করে খুব সুন্দর ভাবে ভিডিও এডিট করতে পারবেন।
অনেকেই মোবাইল দিয়ে ইউটিউবে কাজ করেন তারাও এই সফটওয়্যার গোলো ব্যববহার করে দেখতে পারেন।
যাদের কম্পিউটার নেই তারা এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে ভিডিও এডিট করতে পারবেন। এই সফটওয়্যার গুগোতে অনেক রকম ফিচার রয়েছে যেগুলা ব্যবহার করে ভিডিও এডিট করতে পারবেন। তবে কিছু কিছু সফটওয়্যার আছে যেগুলি সব ফিচার ব্যবহার করার জন্য কিনে নিতে হয়।
ত চলুন সেই সফটওয়্যার গোলো সম্পর্কে যেনে নিই

১ Funimate


ভিডিও এডিট করার জন্য এটি একটি জনপ্রিয় অ্যাপস এই অ্যাপস টি ব্যবহার করে আপনি সুন্দর করে ভিডিও এডিট করতে পারবেন এই অ্যাপস এ অনেক গুলো ফিচার দেওয়া আছে। যেগুলা সব ফিতে ব্যবহার করতে পারবেন।
এই অ্যাপস টি খুব বেশি বাড়ি না। তাই সব মোবাইলে ব্যবহার করতে পারবেন।
এই অ্যাপস টি সম্পুর্ন ফ্রি চাইলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

২ PowerDirector Video Editor


এই অ্যাপস টি অনেক পাওয়ার ফুল একটি অ্যাপস এই অ্যাপস টি দিয়ে আপনি যে কোন দরনের ইফেক্ট দিতে পারবেন ভিডিওতে। এই অ্যপসটিতে অনেক গুলো ফিচার রয়েছে। যা দেখলে আপনার মনে হবে আপনি কম্পিউটারে বসে কাজ করছেন। এই অ্যাপস টি দিয়ে ভিডিও ক্রপ করতে পারবেন ইফেক্ট দিতে পারবেন, কালার করতে পারবেন স্লো মোশন করতে পারবেন টেক্সট দিতে পারবেন। এই অ্যাপস টি অনেক সুন্দর একটি অ্যাপস। তবে এই অ্যাপস এর সব গোলো ফিচার ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন না। সব গুলো ফিচার ব্যবহার করতে হলে আপনাকে সফটওয়্যার টি কিনে নিতে হবে। চাইলে এই সফটওয়্যার টি ব্যবহার করতে পারেন।

৩ Quik


এই অ্যাপস টি ভিডিও এডিট করার জন্য সুন্দর একটি অ্যপস। এটি সাধারন একটি অ্যপস এই অ্যপস টির মাধ্যমে আপনে ছবি দিয়ে ভিডিও বানাতে পারবেন। এটিতে সুন্দর সুন্দর ফন্ট দেওয়া আছে ভিডিওর মাজে কিছু লিখতে চাইলে এই অ্যপসটি হবে আপনার জন্য চমৎকার
এই অ্যাপস এ ভিডিওতে ইফেক্ট দেওয়ার জন্য বেশ কিছু ফিচার রয়েছে। এই অ্যাপসটি সম্পুর্ন ফ্রিতে সব ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন। ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

৪ Videoshow


এই অ্যাপসটি জনপ্রিয় এতটি অ্যাপস এতে অনেক ফিচার রয়েছে যা দিয়ে আপনি অনেক সুন্দর করে ভিডিও এডিট করতে পারবেন।
এই অ্যাপসটিতে ভিডিও এডিট করার সব ধরনের অপসন রয়েছে যা ব্যবহার করে সুন্দর সুন্দর ইফেক্ট দিতে পারেন আপনার ভিডিওতে। এই অ্যাপস টি দিয়ে ভিডিওতে স্টিকার, টেক্সট, ইমেজ দিয়ে ভিডিও বানাতে পারবেন তাছারা আরও ইফেক্ট থিম যুক্ত করতে পারবেন এটি একটি জনপ্রিয় অ্যাপস। চাইলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

৫ Adobe Premiere Clip


এই অ্যাপস টি ভিডিও এডিট করার জন্য অন্যতম একটি অ্যাপস। এই অ্যাপসটির কম্পিউটার ভর্সনও রয়েছে
Adobe premiere Pro এই দুটি সফটওয়্যার ই খুবই জনপ্রিয় এইঅ্যপসটি দিয়ে ছবি থেকে ভিডিও বানাতে পারবেন। টেক্সট দিতে পারবেন এবং আরও অনেক ইফেক্ট দিতে পারবেন এই অ্যাপসটি দিয়ে। তবে কম্পিউটার এর মত সব ফিচার ত আর মোবাইলে ব্যবহার করা যায়না তবে ভিডিও এডিট করার হন্য যে সমস্ত ফিচার প্রয়োজন সব ব্যবহার করতে পারবেন। এই অ্যাপসটি ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন।

৬ FilmoraGo – Free Video Editor



এই অ্যাপস টি ভিডিও এডিট কারার জন্য চমৎকার একটি অ্যাপস। আমি নিজেও এই অ্যাপসটি ব্যবহার করি। এই অ্যাপসটির মাধ্যমে আপনি ছবি থেকে ভিডিও বানাতে পারবেন। ভিডিও কাটিং করতে পারবেন। ভিডিও তে অনেক ধরনের ইফেক্ট দিতে পারবেন। ইউটিউবের জন্য ইউটিউবের সাইজে ভিডিও বানাতে পারবেন। সরাসরি ভিডও ইউটিউবে ইন্সন্ট্রগ্রামে শেয়ার করতে পরবেন।
ভিডিওর স্পিড বাড়াতে কমাতে পারবেন। মোশন গ্রাপিক্স ব্যবহার করতে পারবেন।
একেবারে প্রফেশনাল মানের ভিডিও এিডট করতে পারবেন তবে শক্তিশালী ফিচার ব্যবহারের জন্য কিছু ফিচার কিনে নিতে হবে। চাইলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

৭ KineMaster
এটি একটি জনপ্রিয় এবং শক্তিশালী ভিডিও এডিটিং অ্যাপস। এই অ্যাপসটি দিয়ে আপনি ভিডিওর সকল কিছু করতে পারবেন। এটির সবচেয়ে বড় ক্ষমতা হল লেয়ার এড করা। আপনি এই সফটওয়্যার টি দিয়ে মাল্টিপল জিনিস দিয়ে ভিডিও তিদৈরি করতে পারবেন। যমন ফটো, ইমেজ, স্টিকার, ওভরলে, টেক্সট, আরও অনেক দরনের ফিচার রয়েছে যা আপনে ব্যবহার করলেই বুজতে পারবেন। এই অ্যপপটি দিয়ে ভিডিও ক্রপ করতে পারবেন একটি ভিডিওর উপর আরেকটি ভিডিও ওভার্লে দিতে পারবেন। এই এপসটির অনেক গ্রদুলো ফিচার আছে সব গুলো ফিচার ফ্রি ব্যবহার করতে পারবেন না। কিছু শক্তিশালী ফিচার কিনে নিতে হবে।
চাইলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

৮ ActionDirector Video Editor

এই সফটওয়্যার টির দুটি ভার্সন রয়েছে কম্পিউটার টার ভার্সন আর মোবাইল ভার্সন। কম্পিউটার ভার্সন টি খুবই জনপ্রিয় এই সফটওয়্যার টি দিয়ে প্রফেসনাল মেনের ভিডিও এডিট করা যায়। এতে রয়েছে অনেক ধরনের ফিচার ভিডিওতে এনিমেশন সেট করা। স্লো মোশন করা প্রায় সব ধরনের ফিচার দেওয়া রয়েছে এই সফটওয়্যার টিতে।এটি ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন কুছু ফিচার কিনে নিতে হবে।
চাইলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

৯ Videoshop


এটি একটি সাধারন ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার এটি দিয়ে ভয়েস রেকর্ড করতে পারবেন। ছবি দিয়ে ভিডিও বানাতে পারবেন। ভিডিওতে অনেক রকম ইফেক্ট দিতে পারবেন। ভিডিও ক্রপ করতে পারবেন। চাইলে মোশন ভিডিও বানাতে পারবেন।
এই অ্যাপসটি ফ্রিতেই ব্যবহার করতে পারবেন।
ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

১০ ViraVideo


এই অ্যপসটি ভিডিও এডিট করার জন্য চমৎকার একটি সফটওয়্যার এটি দিয়ে আপনে অনেক রকম ফিচার যোগ করতে পারেবেন। এটি দায়ে আপনি ফটো এডিডট করতে পারবেন। ফটো দিয়ে ভিডিও বানাতে পারবেন। ভিডিও ফিল্টার করতে পারবেন। ভিডিও ফাস্ট এবং স্লো করতে পারবেন। ভিডিও কাটিং করতে পারবেন। ভিডিওতে স্টিকার যোগ করতে পারবে আরও অনক ফিচার রয়েছে। তবে কিছু ফিচার কিনে নিতে হবে।
চাইলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

উপরে কোন ভিডিও এডিটরটি আপনার সবচেয়ে পছন্দ হয়েছে তা আমাদেরকে জানাতে পারেন নিচের মন্তব্য বক্সের মাধ্যমে। এছাড়া আর কোন ভিডিও এডিটর এর কথা জানলে সেটিও আমাদের জানান।
 এছাড়া আরো কোন ভালো ভিডিও এডিটর এর কথা জানলে সেটিও আমাদের জানাতে ভুলবেন না।

পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করে দিবেন । ধন্যবাদ...

Post a Comment

0 Comments