অনলাইন থেকে আয় করার পাঁচটি জনপ্রিয় মাধ্যম। ইনকাম গ্যারান্টি

বাংলাদেশে বর্তমানে প্রচুর মানুষ ফ্রিল্যান্সিং এবং আউটসোর্সিং এর দিকে ঝুঁকছে অনেকেই কাজ বুঝে মার্কেটপ্লেসের নেমে পড়ছে আবার অনেকে কাজ না বুঝে মার্কেটপ্লেসে নেমে পড়ছেন।
এতে করে অনেকে সফলতা অর্জন করতে পারছে এবং অনেকে সফলতা অর্জন করতে না পেরে এই সেক্টর থেকে চলে এসেছেন।

 আমি অনলাইন থেকে ইনকাম করার পাঁচটি টপ সেক্টর নিয়ে আলোচনা করবো যে সেক্টরগুলোতে কাজ করলে আপনি প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

এবং সেক্টর গুলো অনলাইনে খুব জনপ্রিয়।


গ্রাফিক্স ডিজাইন।

গ্রাফিক্স ডিজাইন ফ্রিল্যান্সিং এ একটি জনপ্রিয় পেশা এই স্কিল টি যদি আপনি শিখে নিতে পারেন তাহলে আপনি অনলাইনে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন গ্রাফিক্স ডিজাইন করে।

গ্রাফিক্স ডিজাইন একটি ক্রিয়েটিভ পেশা আপনার নিজের মাঝে যদি ক্রিয়েটিভ কিছু চিন্তা-ভাবনা থাকে তাহলে আপনি এই পেশায় খুব সহজে চলে আসতে পারেন।
আপনি যদি আকা জাকা করতে চান এবং ক্রিয়েটিভ কোন কিছু করতে ভালোবাসেন তাহলে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন সেক্টরটি থেকে খুব সহজেই কাজ করতে পারবেন।
এই পেশাটি খুবই চমৎকার একটি পেশা আপনার ক্রিটিভিটি আপনি পুরো বিশ্বে তুলে ধরতে পারবেন।
এবং এই কাজটি খুব মজার একটি কাজ।
এবং এই গ্রাফিক্স ডিজাইন পেশাটি একটি সম্মানজনক পেশা।

গ্রাফিক্স ডিজাইন সেক্টরে অনেক ধরনের কাজ রয়েছে যেমন লোগো ডিজাইন ব্যানার ডিজাইন এডভার্টাইসমেন্ট ডিজাইন ভিজিটিং কার্ড ডিজাইন ফ্লায়ার ডিজাইন আরো অনেক ধরনের কাজ রয়েছে এই গ্রাফিক্স ডিজাইন সেক্টরে আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন কাজটি শিখে নিতে পারেন।
তাহলে আপনি এই সেক্টরের যেকোনো একটি কাজ বেছে নিতে পারেন আপনার নিজের জন্য।

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখে অনলাইনে কাজে নেমে পড়েন আপনি চাইলে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারেন এবং গ্রাফিক্স ডিজাইনের স্কিল ব্যবহার করে আপনি চাইলে বিভিন্ন প্রোডাক্ট সেল করতে পারেন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস এর মাধ্যমে।
যেমন বিজনেস কার্ড লোগো ফ্লায়ার ডিজাইন এই সমস্ত টেমপ্লেট চাইলে বিক্রিও করতে পারেন।

ফ্রিল্যান্সিং এ গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের বেতন তাদের কাজের উপর নির্ভর করে থাকে।
আপনি যত বেশি কাজ করতে পারবেন আপনি তত বেশি আর্নিং করতে পারবেন এই সেক্টর থেকে।
তবে সাধারণত যদি আপনি ভালো দক্ষতার সাথে কাজ করতে পারেন প্রথমে হয়তো বা ইনকাম খুব কম হতে পারে কিন্তু এক সময় আপনি 500 থেকে 1000 ডলার এর বেশি ইনকাম করতে পারবেন এই গ্রাফিক্স ডিজাইন সেক্টর থেকে।


ওয়েব ডেভলপমেন্ট।

এই প্রযুক্তির যুগে প্রায় সবাই চায় তাদের প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি ওয়েবসাইট থাকবে অথবা তার ব্যবসার জন্য একটি ওয়েবসাইট থাকবে।
বর্তমান বিশ্বের সবাই চায় অফলাইন এবং অনলাইন এ দুটি জায়গায় তাদের বিজনেস টি কে প্রতিষ্ঠা করার জন্য।

তাই সবাই নিজের বিজনেস এর জন্য একটি ওয়েবসাইট রাখতে চায় এবং বর্তমান সময়ে প্রচুর পরিমাণে বিজনেস এর জন্য ওয়েবসাইট রয়েছে এবং প্রতিদিন হাজার হাজার ওয়েব সাইট তৈরি হচ্ছে।
আর এই ওয়েবসাইটগুলো তৈরি করে দিচ্ছে বিভিন্ন ওয়েব ডেভলপার।

আপনি যদি একজন ভাল ওয়েব ডেভেলপার হতে পারেন আপনি প্রতিনিয়ত ও এই কাজগুলো পেয়ে যাবেন অনলাইনে।
 এবং প্রচুর পরিমাণে টাকা ও ইনকাম করতে পারবেন অনলাইন থেকে।
এই ওয়েব ডেভলপমেন্ট কাজটি অনলাইনে প্রচুর পরিমাণে চাহিদা রয়েছে আমরা অনলাইনে যে ওয়েবসাইটগুলো ভিজিট করি এবং ইন্টারনেটে যে সমস্ত সাইট গুলো আমরা ব্রাউজ করে এ সমস্ত সাইটগুলি হচ্ছে ওয়েবসাইট আর এই ওয়েবসাইটগুলো তৈরি করেছেন কোন না কোন এক ওয়েব ডেভলপার।

ইন্টারনেটের বিশাল একটা জায়গা জুড়ে রয়েছে এই ওয়েবসাইট।
আর ওয়েব ডেভলপারের চাহিদাও দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে।
অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে ওয়েব ডেভলপমেন্টের জব হাজার হাজার রয়েছে আপনি চাইলে ওয়েব ডেভলপমেন্ট কাজটি শিখে এই সেক্টরে চলে আসতে পারেন।
একজন ভাল ওয়েব ডেভেলপার হওয়ার জন্য আপনাকে কিছু কিছু বিষয় শিখে নিতে হবে এবং কিছু প্রোগ্রামিং শিখে নিতে হবে।
এইচটিএমএল।
সিএসএস 
পিএইচপি 
জাভাস্ক্রিপ্ট
জেকোয়েরি এই সমস্ত প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ গুলো ভালোভাবে শিখে নিতে হবে তাহলে আপনার জন  ওয়েব ডেভলপার হতে পারবেন।

এই সেক্টরে ফ্রিল্যান্সিং এ বেতন অনেকটাই বেশি আপনি একটি ওয়েব সাইট করে দেওয়ার মাধ্যমে 500 থেকে 1000 ডলার পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন এবং প্রতি ঘন্টায় একজন ওয়েব ডেভেলপার এর ডিমান্ড 5 থেকে 100 ডলার পর্যন্ত হয়ে থাকে।
আপনি ওয়েব ডেভলপমেন্ট ভালোভাবে শিখে নিয়ে এ সেক্টরের চলে আসতে পারেন এবং প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন যদি একজন ভাল ওয়েব ডেভেলপার হতে পারেন।


কনটেন্ট রাইটিং।

অনলাইন থেকে আয় করার জন্য সহজ একটি মাধ্যম হচ্ছে কনটেন্ট রাইটার এই সেক্টরে আপনি কোন একটা বিষয়ে লেখালেখি করে ইনকাম করতে পারবেন যেটি চমৎকার একটি বিষয়।
যাদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখালেখি করতে ভালো লাগে এবং লেখালেখি করতে পছন্দ করেন তারা এই সেক্টরটি তে চলে আসতে পারেন ফ্রিল্যান্সিং অথবা আউটসোর্সিং করার জন্য।

একজন কনটেন্ট রাইটার অনেক ভাবে ইনকাম করতে পারেন কোন একজন ক্লায়েন্টের কোন একটি প্রোডাক্টের ডেসক্রিপশন লিখে দিতে পারেন।
এবং চাইলে ব্লগিং করতে পারেন নিজের ওয়েবসাইটে কনটেন্ট রাইটিং করেও ইনকাম করতে পারেন।
ওয়েব সাইটের কনটেন্ট লিখে দিতে পারেন ট্রানসলেশন করে দিতে পারেন।
 প্রেজেন্টেশন করে দিতে পারেন।

এ কনটেন্ট রাইটিংয়ের আপনি অনেকগুলো উপায় এই ইনকাম করতে পারেন অনলাইন থেকে।
কনটেন্ট রাইটিং এই কাজটি করতে গেলে আপনাকে বেশ কিছু জিনিস নিজের মাথায় রাখতে হবে

যেমন কোন একটি প্রোডাক্টের ডেসক্রিপশন লিখতে গেলে আপনাকে খুব ভালো ভাবে এই লেখাটা লিখে দিতে হবে।
 কোন ক্লায়েন্ট কে যেন প্রোডাক্ট এর সমস্ত বিষয় গুলো আপনি ভালো ভাবে লিখতে পারেন এবং যে আপনার এই লেখাটি পড়বে সে যেন লেখাটি পড়ে প্রোডাক্ট এর বিষয়বস্তু গুলোক বুঝতে পারে এই ভাবে আপনাকে প্রডাক্ট ডেস্ক্রিপশন গুলো লিখতে হবে।
এবং আপনি যে ক্লায়েন্টের কাজ করবেন তার কাছ থেকে ভালোভাবে বুঝে নিতে হবে যে সে কি চাচ্ছে আপনার কাছ থেকে ঠিক সেভাবেই তার কনটেন্ট লিখে দিতে হবে।
এই কনটেন্ট রাইটিং করে 10 থেকে 20 ডলার প্রতি ঘন্টায় এবং কি 50 ডলার প্রতি ঘন্টায় আপনি ইনকাম করতে পারবেনঅনলাইন থেকে।

যদি আপনার লেখা একটি মানসম্মত এবং আপনার লেখা খুবই ভালো হয় তাহলে।
আপনি ভালো একজন লেখক হলে আপনি এই সেক্টরটি তে চলে আসতে পারেন অনলাইনে কাজ করার জন্য।


এফিলিয়েট মার্কেটিং।

অনলাইন থেকে প্যাসিভ ইনকাম করার একটি চমৎকার উপায় হচ্ছে এফিলিয়েট মার্কেটিং।
এফিলিয়েট মার্কেটিং এর কাজ করে বর্তমান সময়ে প্রচুর মানুষ লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে।

এফিলিয়েট মার্কেটিং এমন একটি ইনকাম প্রসেস আপনি অনেক সময় কাজ করে আপনার ওয়েবসাইট বা আপনার ব্লগ টি যদি আপনি গুগলের প্রথম নিয়ে যেতে পারেন এক সময় আপনি কাজ না করেও এখান থেকে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।।

এবং অনেকেই আছে এই সেক্টরে কাজ করে প্রতি মাসের 10000-20000 ডলার ইনকাম করেছেন।
এফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য আপনাকে একটি ওয়েবসাইট বা একটি ব্লক লাগবে যেখান থেকে আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম করবেন তার জন্য আপনাকে অবশ্যই প্রোডাক্ট সম্পর্কে ভাল লিখতে হবে এবং প্রোডাক্ট গুলি সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে হবে।
এবং একই প্রসেসে আপনি আপনার ওয়েবসাইট গুলো বিভিন্ন এডভার্টাইসমেন্ট কোম্পানির মাধ্যমে মনেটাইজ করে সেখান থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।
এফিলিয়েট মার্কেটিং  একটি জনপ্রিয় এবং স্মার্ট ক্যারিয়ার যদি আপনি কাজ গুলো ভালোভাবে করতে পারেন।


(এসইও) সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন।

বিশ্ব বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট এর দিকে বেশি ঝুঁকছে এবং সবাই চাচ্ছে তাদের বিজনেসটা পুরো বিশ্বের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য।
সেই বিজনেস টি পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়ার কাজটি করে থাকে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বা এসইও।
প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণে ওয়েবসাইট তৈরি হচ্ছে যে নতুন নতুন ওয়েবসাইট গুলো তৈরি হচ্ছে সেগুলো মানুষ জানে না এবং সেই ওয়েবসাইটগুলো মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার যে প্রসেসটি রয়েছে সেই প্রসেসটি করে দেয় এসইও এক্সপার্ট রা।

এই এসইওর চাহিদা বর্তমান বিশ্বে প্রচুর পরিমাণে বেড়ে আসছে।
এই এসইও কাজটি সিখলে আপনি প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন অনলাইন থেকে।
আপনি যদি একজন ভাল এসইও এক্সপার্ট হতে পারেন তাহলে আপনি প্রতি মাসে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করতে পারবেন যার কোন লিমিটেশন নেই।

তার জন্য আপনাকে বেশ কিছু জিনিস জানতে হবে বিভিন্ন ধরনের কনটেন্ট লিখতে হতে পারে এবং প্রচুর পরিমাণে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে হবে এই বিষয়গুলো আপনাকে ভালোভাবে শিখে নিতে হবে।
এবং বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া থেকে আপনাকে মার্কেটিং করতে হবে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখতে হবে।

এবং যে কোন ওয়েব সাইটের রেজিস্ট্রেশন এবং সাইন আপ করার প্রসেস গুলো আপনাকে ভালো ভাবে জানতে হবে।
এই বিষয়গুলো জেনে যদি আপনি কাজ করতে পারেন একজন এসইও এক্সপার্ট হিসেবে তাহলে আপনি খুব সহজে অনলাইনে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।


5 টি বিষয়ের যেকোনো একটি সেক্টরে যদি আপনি কাজ করতে পারেন তাহলে আপনি অনলাইন থেকে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।
তার জন্য অবশ্যই আপনাকে চেষ্টা করতে হবে এবং নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস রাখতে হবে তাহলে আপনি সফল হতে পারবেন

আপনি নিজে যে কাজটি করতে পছন্দ করেন সেই কাজটি করার মাধ্যমে আপনি অনলাইন প্লাটফর্মে এসে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনার নিজের মাঝে কাজ করার আনন্দ ও যাগবে এবং খুব দ্রুত আপনি ইনকাম করতে পারবেন।

Post a Comment

0 Comments