ভিডিও মার্কেটিং কি? এবং কিভাবে ভিডিও মার্কেটিং করবেন


ওয়েবসাইটের ভিজিটর বাড়ানো অথবা ইউটিউবের ভিডিওতে ভিউ বাড়ানোর জন্য ভিডিও মার্কেটিং একটি জনপ্রিয় মাধ্যম।

কোন একটি প্রোডাক্ট সেল করা অথবা ইউটিউবের ভিডিওতে ভিউ বারানো অথবা ওয়েব সাইটে ভিজিটর সব ক্ষেত্রে ভিডিও মার্কেটে অনেকটা জনপ্রিয় কারন এই ভিডিও মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনি সবকিছুই করতে পারবেন।

ভিডিও মার্কেটিং জনপ্রিয় হওয়ার কারণ হল । ভিডিওতে ডিজিটর খুব সহজভাবে প্রোডাক্ট এর সমস্ত কিছু জানতে পারে এতে ভিজিটরের পড়তে হয় না ভিজিটর 2 - 3 মিনিটের মধ্যেই একটি প্রোডাক্ট এর সমস্ত বিষয় জানতে পারে।
এবং আপনি নিজেও ভিডিওর মাধ্যমে আপনার প্রোডাক্টের সমস্ত কিছু আপনার ভিজিটরের সামনে তুলে ধরতে পারবেন এবং প্রোডাক্ট এর ছবি প্রডাক্ট যে সমস্ত কিছু আপনি ভিডিও মাধ্যমে তুলে ধরতে পারবেন তাই ভিডিও মার্কেটিং একটি প্রোডাক্ট সেল হওয়ার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

এবং এই ভিডিওগুলো আপনি সম্পূর্ণ ফ্রিতে পাবলিশ করে দিতে পারছেন ইউটিউবে। আর ইউটিউবে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর হয়েছে যারা প্রতিনিয়ত ভিডিও দেখার জন্য ইউটিউব এ প্রবেশ করে থাকে। এবং আপনি খুব অল্প সময় সেই ভিডিওটি ইউটিউব এর মাধ্যমে অনেক লোকের কাছে পৌঁছে দিতে পারবেন।

আপনি কোন একটি ভিডিও তৈরি করে অথবা কোন একটি প্রোডাক্ট এর রিভিউ দেখিয়ে আপনি সেই ভিডিওটি ইউটিউবে পাবলিশ করে দেওয়ার পরে ইউটিউব এর ভিডিও ডেসক্রিপশন বক্সে আপনি সেই প্রোডাক্টের অথবা আপনার ওয়েবসাইটের লিঙ্ক দিয়ে দিতে পারেন। প্রচুর পরিমানে ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে প্রকাশ করবে।

পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট গুলোর মধ্যে বর্তমান সময় ইউটিউব রয়েছে এক নাম্বারে।
 এবং ভিডিও আপলোড করার মাধ্যমেই ইউটিউব থেকেও ইনকাম করা যায়। আপনি চাইলে ভিডিও মার্কেটিং করার পাশাপাশি আপনি ইউটিউব থেকে একটি ইনকাম করে নিতে পারবেন।

এই ভিডিও মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনার আর্নিং ও হয়ে যাবে এবং আপনার প্রোডাক্টের প্রচারণা হয়ে যাবে দুটি আপনি করতে পারবেন একসাথে। এবং দুটি জায়গা থেকে আপনি আর্নিং করতে পারবেন এই ভিডিও মার্কেটিং করে। তাই এটি অনেক জনপ্রিয় একটি কাজ।

ভিডিও মার্কেটিং করার জন্য আমাদেরকে যে বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখতে হবে আমাদেরকে খুব সুন্দর ভাবে ভিডিও বানাতে হবে এবং ভিডিও কোয়ালিটি যেন ভালো হয় সাউন্ড কোয়ালিটি যেন ভালো হয় এবং আমরা কোন জিনিসটা মানুষ কে প্রকাশ করাতে চাচ্ছি সে জিনিসটা কে বেশি লক্ষ্য রেখে আমাদেরকে ভিডিও বানাতে হবে তাহলে আমরা ভিডিও মার্কেটিং এ খুব দ্রুত সফল হতে পারব।

আপনার ভিডিও মার্কেটিং এর জন্য ভিডিও ব্র্যান্ডিং একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আপনার ভিডিওটি যেন মানুষ দেখে আপনার ভিডিওটি মনে রাখতে পারে অথবা আপনার চ্যানেলের নাম টি যেন মনে রাখতে পারে সে জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি ইউনিক নাম চয়েজ করতে হবে।
 ইউটিউব এর জন্য অথবা আপনার ওয়েবসাইটের জন্য যে কোন বিজনেসের জন্য একটি ইউনিক নাম চয়েস করাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

আপনি যদি ভিডিও মার্কেটিং করেন কোন পণ্যের ভিডিও যদি মার্কেটিং করেন তাহলে আপনার ভিডিওটি অবশ্যই বড় করা যাবে না ছোট ধরনের একটি ভিডিও তৈরি করতে হবে।
দুই থেকে পাঁচ মিনিটের ভিডিও তৈরি করলে ভাল হয় এই সময়ের মধ্যে যেন আপনি আপনার প্রোডাক্টে খুব ভালোভাবে আপনার ভিজিটর কে বুঝাতে পারেন এই দিকে লক্ষ্য রেখে ভিডিও তৈরি করতে হবে।
তাহলে আপনার ভিডিওটি পুরোপুরি মানুষ দেখবে অন্যথায় আপনি যদি অনেক বড় করে ফেলেন ভিডিও তাহলে হয়তো বা মানুষ টেনে টেনে ভিডিওটি দেখতে পারে সে ক্ষেত্রে আপনার মূল উদ্দেশ্য নষ্ট হয়ে যেতে পারে।


আপনি যখন আপনার পণ্যের ভিডিও মার্কেটিং করবেন তখন নিজেকে খেয়াল রাখবেন যেন পণ্যের মার্কেটিং করতে গিয়ে আপনি অন্য কথা না বলে ফেলেন যথাযথ চেষ্টা করবেন আপনি যেই ক্যাটাগরিতে ভিডিও তৈরি করছে ঠিক সেই ক্যাটাগরি কিছু কথা বলে প্রোডাক্ট এর রিভিউ দিয়ে ভিডিওটি শেষ করে দেওয়ার।
আপনি একই ভিডিওতে অনেকগুলো ক্যাটাগরি নিয়ে কোনো কথা বলবেন না সব সময় চেষ্টা করবেন একটি ক্যাটাগরি নিয়ে ভিডিও তৈরি করার জন্য।


কিভাবে ভিডিও মার্কেটিং এ সফল হবেন।

ভিডিও মার্কেটিং এ সফল হতে হলে আপনাকে অবশ্যই প্রচুর পরিমাণ ধর্য  রাখতে হবে এবং আত্মবিশ্বাস রেখে কাজ করতে হবে তাহলে আপনি ভিডিও মার্কেটিং এ সফল হতে পারবেন।
আপনি যদি কিছু দিন কাজ করে ধৈর্য হারিয়ে ফেলেন তাহলে আপনি সফল হতে পারবেন না আপনার সব ভিডিও যে বাইরাল হবে তেমনটা না আপনি অনেকগুলো ভিডিও আপলোড করলে সেখান থেকে যেকোন একটি ভিডিও ভাইরাল হতে পারে অথবা প্রতিদিনের ভিডিও ভাইরাল হতে পারে সেটা কোন ব্যাপার না আপনাকে প্রতিনিয়ত কাজ করে যেতে হবে।
তাহলে আপনার সফল হতে পারবে না

এবং ভিডিও তৈরি করার সময় ভিডিও কোয়ালিটি সাউন্ড কোয়ালিটি এ সমস্ত কিছু রেখে খেয়াল রাখতে হবে তাহলে আপনার ভিডিও মানুষ দেখবে এবং আপনার ভিডিও মানুষ অন্যের সাথে শেয়ার করবে আর এভাবে আপনার বিজনেসটা গ্রও হতে থাকবে ।
তাই আপনাকে প্রচুর পরিমাণে চেষ্টা করতে হবে এবং ধৈর্য নিয়ে কাজ করতে হবে তাহলে আপনি একদিন সফল হতে পারবেন।

Post a Comment

0 Comments