ছাত্রদের জন্য Online হতে টাকা আয় করার ৫ টি সহজ ঊপায়


আপনিও পারেন পরালেখার পাশাপাশি ইনকাম করতে।
আমরা প্রায় সব ছাত্র ছাত্রীরাই ইনটারনেট ব্যবহার করে থাকি। অনেকেই 
Facebook এ প্রতিদিন অনেক সময় ব্যয় করে থাকি এবং মোবাইলে গেম থেলে এই সময়টা যদি আমরা আমাদের ক্যারিয়ার এর পিছনে ব্যয় করি তাহলে কেমন হয়।
আমি আজকে এমন কিছু কাজের কথা বলব যা আমরা পরালেখার পাশাপাশি এই কাজগুলি করতে পারবো

আমরা প্রায় সবাই ইনটারনেটে সময় খরচ করি আমাদের বন্ধুদের সাথে চ্যাট করে ইউটিউবে ভিডিও দেখে এই কাজ ড়ুলো করে আমরা ইন্টানেটে ঘন্টর পর ঘন্টা পার করে দিচ্ছি। অতচ নিজের মুল্যবান সময়টা নষ্ট করলাম। আপনি যদি হিসাব করেন প্রতিদিন কতক্ষন ইন্টারনেট ব্যবহার করেছেন প্রায় সব লোকেই বলবে ৩-৪ ঘন্টা। এখন আপনি হিসাব করে দেখুন ইনটারনেটে কতটা সময় ব্যয় করেছেন। প্রায় ১২০০-১৫০০ ঘন্টার মত সময় ব্যয় করেছেন। এই সময়টুকু বন্ধুদের সাথে চ্যাট করে সামাজিক যোগযোগের মাধ্যমে। নিজের এইযে সময় টুকু নষ্ট করলেন। নিজের কাছে কি একবার প্রশ্ন করেছেন এই সময়টা ব্যায় করে আপনি কি পেয়েছেন। কিছুইনা আপনি এই সময়টুকু আপনার কোন কাজে ব্যবহার করেন নি। এই সময়টুকু আপনি আর পাবেন না। আপনার কাছ থেকে এই সময়টা আপনাকে কিছু না দিয়েই চলে গেল।

আপনি এই সময়টা চাইলে আপনার নিজের কাহে ব্যয় করতে পারেন অনলাই থেকে কিছু টাকা ইনকাম করতে পারলে খারাপ কি নিজের খরচটা ত চালালে পারবেন যেই সময়টা  Facebook Youtube খরচ করেন তা আজ থেকে নিজের একটি ক্যারিয়ার গড়ার লক্ষে কাজ করুন চ্যাট করে ত অনেক সময় নষ্ট করলরন এবার একটু নিজের জন্য ব্যয় করুন

ইন্টারনেটকে ব্যবহার করে সুধু গেমস ইন্টারটেনমেন্ট ই না এই ইন্টারনেট কে ব্যবহার করে মানুষ অনেক টাকা উপর্যন করছে চাইলে আপনিও পারেন এই কাজ গুলি করতে।

১ Youtube ইউটিউব কে ব্যবহার করে আপনি মাসে প্রচুর পরিমানে টাকা ইনকাম করতে পারেন ইউটিউবে টাকা ইনকামের কোন লিমিট নাই। আপনি যত কাজ করবেন তত টাকা ইনকাম করতে  পারবেন । ইউচিউবিং কিবাবে করবেন তার কিছু নিয়ম। আপনি যদি একজণ ইউটিউবার হতে চান আপনাকে একজন কন্টেন্ট মেকার হবে হবে। আপনাকে নিজে ভিডিও বানাতে হবে। কোন ভিডিও  ডাউনলোড করে আপলোড করে দিলে বে না। আপনার চ্যানেলের জন্য আপনাকে নিজের ভিডিও বানাতে হবে। আপনি যে বিষয়ে ভাল জানেন বুজেন সেই বিষয়ে ভিডিও আপলোড করতে পারেন।
ভিডিও আপলোড করার জন্য ইউটিউবে আপনাকে একটি চ্যানেল খুলে নিতে হবে।
সেই চ্যানেলে আপনার ভিডিও আপলোড করতে হবে। সুধু ভিডিও আপলোড করলেই টাকা আসবে না আপনার ভিডিও গুলো ইউটিউবের কিছু রুলস্ আছে সেই রুলস্ এর বিতরে থাকতে হবে। এবং এক বছরের মধ্যে আপনার চ্যানেলে বর্তমান সময়ে ৪ হাজার ঘন্টা ওয়াচ টাইম থাকতে হবে এবং ১ হাজার সাবস্কাইব থাকতে হবে। ইউটিউব এই নিয়ম আবার যে কোন সময় পাল্টাতে পারে। এই সব কিছু ঠিক থাকলে আপনার চ্যানেল মনিটাইজ হয়ে যাবে এবং আপনি ইনকাম করতে পারবেন।

২ ব্লগিং ব্লগিং বা আর্টিকেল রাইটার আপনি ওয়েব সাইটে লেখালিখি করেও ইনকাম করতে পারেন একটি ওয়েব সাইট বানিয়ে নিয়ে সেই সাইটে লেখা লিখি করে ইনকাম করতে পারেন। ওয়েব সাইট blogspot অথবা wordpress এ বানিয়ে নিতে পারেন। সুধু একটি সাইট বানিয়ে নিলেই ইনকাম আসবেনা সাইটে আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে প্রতিনিয়ত পোস্ট করতে হবে। আপনার সাইটের কন্টেন্ট ভাল হতে হবে। কোন কপি পোস্ট করা যাবেনা। নিজে নিজে লিখতে হবে।
এমন কনন্টেন্ট লিখতে হবে যেন মানুষের কাজে আজে আসে আপনার কনটেন্ট পরে যদি মানুষের কোন কাজে না আসে তাহলে মুনষ আপনার সাইট বিজিট কেন করবে। তাই ভাল কিছু লিখতে হবে তাহলেই আপনার সাইট মানষ বিজিট করবে আর মানুষ আপনার সাইট বিজিট করলেই আপনার ইনকাম আসবে।

৩ Freelancing ফ্রিলেনসিং করে ইনকাম করতে পারেন আপনি চাইলে কোন একটি দক্ষতা অর্জন করে আপনি ফ্রিলেনসিং করতে পারেন। আপনি কোন একটি কম্পানি কে আপনার দক্ষতা দিয়ে সাহায্য করতে পারেন। তাদেরকে সাহায্যের বিনিময়ে কাজ করে দিয়ে ইনকাম করে নিতে পারেন। ফ্রিলেনসিং এ যে কাজ গুলি করতে পারেন।

গ্রাপিক্স ডিজািইন
ওয়েব ডেপলপমেন্ট
সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন
আর্টিকেল রাইটার

আরও অনেক কাজ আছে যেগুলি করার মাধ্যমে আপনি চাইলে ফ্রিলেনসিং করতে পারেন এবং মাস সেষে একটি ভাল এমাওন্ট আর্নিং করতে পারেন।

৪ এডসেন্স : এডসেন্স এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে ইনকাম কারা হল অনলাইনের মধ্যে একটি জনপ্রিয় মাধ্যম যা মাধ্যমে মানুষ প্রচুর পরিমানে অর্থ ওপার্যন করছে। আপনার যদি একটি ব্লগ বা একটি ওয়েব সাইট থাকে তাহলে আপনি এডসেন্সের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন। এবং যদি আপনার একটি ইউটিউব চেন্যাল থাকে তাহলেও আপনি এডসেন্সের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারেন।
এডসেন্স হচ্ছে গুগলের একটা সার্ভিস আর এটা বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপনের  কম্পানি তাই এখান থেকে আপনি দীর্ঘ সময় ইনকাম করতে পারবেন।
আর এডসেন্স পাওয়াটা খুব কঠিন কোন কাজ নয় আপনি যদি আপনার সাইটে ২০-৩০ টা ভাল মানের পোস্ট করেন তাহলেই আপনার সাইট এডসেন্সে এপ্রুব হয়ে যাবে যদি আপনার সাইটে কোন কপি করা পোস্ট না থাকে।

৫ Affiliate Marketing আপনি চাইলে এফ্যিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন বিশ্বের বড় বড় কম্পানি এই অফার গুলো দিচ্ছে যেমন Amazon Ebay Alibaba Aliexpres এর কম আরো সাইট আছে যারা এই অফার গুলো দিচ্ছে। এফ্যিলিয়েট হল কমিশনের বিনিময়ে অন্যের প্রডাক্ট সেল করে দেওয়ার মাধ্যমে ইংকাম করা। মনে করুন কোন এক কম্পানি আপনাকে একটি অফার দিল তার কোন প্রডাক্ট সেল করে দিতে পারলে ১০% কমিশন দিবে। আপনি যদি ১০০ টাকার একটি প্রডাক্ট সেল করে দিতে পারেন তাহলে আপনি পাচ্ছেন ১০ টাকা আর ১০০০ টাকার এতটি প্রডাক্ট সেল করে দিতে পারলে পাচ্ছেন ১০০ টাকা এটাই হল এফ্যলিয়েট মার্কেটিং।  আর এই এফিলিয়েট মার্কেটিং করে মানুষ প্রচুর পরিমানে টাকা অর্জন করছে। অনলাইনে ইনকামের এই সেক্টরটি প্রচুর বড় তাই এখানে আপনাকে প্রতিনিয়ত লেগে থাকতে হবে পুরো বিশ্বের মানুষ এখন অনলাইন থেকে কিনাকাটা করছে তাই এই সেক্টরে যদি আপনি কাজ করতে পারেন ভাল একটি অর্নিং করতে পারবেন ইনসাআল্লাহ।

আমার কিছু কথা : অনলািইনে টিকে থাকতে হলে আপনাকে এর পিছনে ভালভাবে লেগে থাকতে হবে। এই অনলাইন সেক্টরে অনেকে টাকার লোভে চলে আছে এবং টাকা উপার্জন করতে পারেনা কারন তারা ধৈর্য হারিয়ে ফেলে আর অনলাইনটা সটথাটে বড় হবার জায়গা না এখানে আপনাকে অনেকদিন লেগে থাকতে হবে তার পরই আপনি দেখতে পাবেন এক সময় আপনি প্রচুর পরিমানে টাকা উপার্যন করতে পারছেন।

উপসংহারঃ আপনারা পোষ্টটি পড়ে হয়তো ভাবছেন এখানে ইন্টারনেট হতে আয় করার কথা বার বার বলা হচ্ছে কিন্তু কিভাবে করবো তা দেখানো হচ্ছে না কেন? আসলে কিভাবে আয় করবেন এটা নিয়ে বর্ণনা করা এই পোষ্টের উদ্দেশ্য নয়। আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে আমি আপনাদের শুধু আয় করার সহজ কয়েকটি পথ দেখিয়ে দিলাম। যার ফলে আপনি এই পথ ধরে অনলাইন হতে কিছু টাকা উপার্জন করে নিতে পারবেন। আর আপনার যদি ইচ্ছা থাকে তাহলে এ সম্পর্কে ইন্টারনেট হতে বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন। তবে আমরাও পরবর্তীতে আলাদাভাবে সব টপিক নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো, ইনশাআল্লাহ্। ততক্ষণ আমাদের সাথে থাকুন পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করে দিবেন । ধন্যবাদ...

Post a Comment

1 Comments